Home    Source

 
 Home
 Subject Index
 Bukhari Shareef
 Muslim Shareef
 Abu Dawud
 Malik Muwatta
Google
See Arabic as Image 
44) সূরা আদ দোখান (মক্কায় অবতীর্ণ), আয়াত সংখ্যা 59
 بِسْمِ اللّهِ الرَّحْمـَنِ الرَّحِيمِ
 শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু।
  Ayahs:   | 1-15 | 16-30 | 31-45 | 46-59 |
 
  مِن فِرْعَوْنَ إِنَّهُ كَانَ عَالِيًا مِّنَ الْمُسْرِفِينَ  (31
ফেরাউন সে ছিল সীমালংঘনকারীদের মধ্যে শীর্ষস্থানীয়।  
Inflicted by Pharaoh, for he was arrogant (even) among inordinate transgressors.  
 
  وَلَقَدِ اخْتَرْنَاهُمْ عَلَى عِلْمٍ عَلَى الْعَالَمِينَ  (32
আমি জেনেশুনে তাদেরকে বিশ্ববাসীদের উপর শ্রেষ্ঠত্ব দিয়েছিলাম।  
And We chose them aforetime above the nations, knowingly,  
 
  وَآتَيْنَاهُم مِّنَ الْآيَاتِ مَا فِيهِ بَلَاء مُّبِينٌ  (33
এবং আমি তাদেরকে এমন নিদর্শনাবলী দিয়েছিলাম যাতে ছিল স্পষ্ট সাহায্য।  
And granted them Signs in which there was a manifest trial  
 
  إِنَّ هَؤُلَاء لَيَقُولُونَ  (34
কাফেররা বলেই থাকে,  
As to these (Quraish), they say forsooth:  
 
  إِنْ هِيَ إِلَّا مَوْتَتُنَا الْأُولَى وَمَا نَحْنُ بِمُنشَرِينَ  (35
প্রথম মৃত্যুর মাধ্যমেই আমাদের সবকিছুর অবসান হবে এবং আমরা পুনরুত্থিত হব না।  
"There is nothing beyond our first death, and we shall not be raised again.  
 
  فَأْتُوا بِآبَائِنَا إِن كُنتُمْ صَادِقِينَ  (36
তোমরা যদি সত্যবাদী হও, তবে আমাদের পূর্বপুরুষদেরকে নিয়ে এস।  
"Then bring (back) our forefathers, if what ye say is true!"  
 
  أَهُمْ خَيْرٌ أَمْ قَوْمُ تُبَّعٍ وَالَّذِينَ مِن قَبْلِهِمْ أَهْلَكْنَاهُمْ إِنَّهُمْ كَانُوا مُجْرِمِينَ  (37
ওরা শ্রেষ্ঠ, না তুব্বার সম্প্রদায় ও তাদের পূর্ববর্তীরা? আমি ওদেরকে ধ্বংস করে দিয়েছি। ওরা ছিল অপরাধী।  
What! Are they better than the people of Tubba and those who were before them? We destroyed them because they were guilty of sin.  
 
  وَمَا خَلَقْنَا السَّمَاوَاتِ وَالْأَرْضَ وَمَا بَيْنَهُمَا لَاعِبِينَ  (38
আমি নভোমন্ডল, ভূমন্ডল ও এতদুভয়ের মধ্যবর্তী সবকিছু ক্রীড়াচ্ছলে সৃষ্টি করিনি।  
We created not the heavens, the earth, and all between them, merely in (idle) sport:  
 
  مَا خَلَقْنَاهُمَا إِلَّا بِالْحَقِّ وَلَكِنَّ أَكْثَرَهُمْ لَا يَعْلَمُونَ  (39
আমি এগুলো যথাযথ উদ্দেশ্যে সৃষ্টি করেছি; কিন্তু তাদের অধিকাংশই বোঝে না।  
We created them not except for just ends: but most of them do not understand.  
 
  إِنَّ يَوْمَ الْفَصْلِ مِيقَاتُهُمْ أَجْمَعِينَ  (40
নিশ্চয় ফয়সালার দিন তাদের সবারই নির্ধারিত সময়।  
Verily the Day of sorting out is the time appointed for all of them,-  
 
  يَوْمَ لَا يُغْنِي مَوْلًى عَن مَّوْلًى شَيْئًا وَلَا هُمْ يُنصَرُونَ  (41
যেদিন কোন বন্ধুই কোন বন্ধুর উপকারে আসবে না এবং তারা সাহায্যপ্রাপ্তও হবে না।  
The Day when no protector can avail his client in aught, and no help can they receive,  
 
  إِلَّا مَن رَّحِمَ اللَّهُ إِنَّهُ هُوَ الْعَزِيزُ الرَّحِيمُ  (42
তবে আল্লাহ যার প্রতি দয়া করেন, তার কথা ভিন্ন। নিশ্চয় তিনি পরাক্রমশালী দয়াময়।  
Except such as receive Allah.s Mercy: for He is Exalted in Might, Most Merciful.  
 
  إِنَّ شَجَرَةَ الزَّقُّومِ  (43
নিশ্চয় যাক্কুম বৃক্ষ  
Verily the tree of Zaqqum  
 
  طَعَامُ الْأَثِيمِ  (44
পাপীর খাদ্য হবে;  
Will be the food of the Sinful,-  
 
  كَالْمُهْلِ يَغْلِي فِي الْبُطُونِ  (45
গলিত তাম্রের মত পেটে ফুটতে থাকবে।  
Like molten brass; it will boil in their insides.  
 
  Ayahs:   | 1-15 | 16-30 | 31-45 | 46-59 |