Home    Source

 
 Home
 Subject Index
 Bukhari Shareef
 Muslim Shareef
 Abu Dawud
 Malik Muwatta
Google
See Arabic as Image 
51) সূরা আয-যারিয়াত (মক্কায় অবতীর্ণ), আয়াত সংখ্যা 60
 بِسْمِ اللّهِ الرَّحْمـَنِ الرَّحِيمِ
 শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু।
  Ayahs:   | 1-15 | 16-30 | 31-45 | 46-60 |
 
  قَالَ فَمَا خَطْبُكُمْ أَيُّهَا الْمُرْسَلُونَ  (31
ইব্রাহীম বললঃ হে প্রেরিত ফেরেশতাগণ, তোমাদের উদ্দেশ্য কি?  
(Abraham) said: "And what, O ye Messengers, is your errand (now)?"  
 
  قَالُوا إِنَّا أُرْسِلْنَا إِلَى قَوْمٍ مُّجْرِمِينَ  (32
তারা বললঃ আমরা এক অপরাধী সম্প্রদায়ের প্রতি প্রেরিত হয়েছি,  
They said, "We have been sent to a people (deep) in sin;-  
 
  لِنُرْسِلَ عَلَيْهِمْ حِجَارَةً مِّن طِينٍ  (33
যাতে তাদের উপর মাটির ঢিলা নিক্ষেপ করি।  
"To bring on, on them, (a shower of) stones of clay (brimstone),  
 
  مُسَوَّمَةً عِندَ رَبِّكَ لِلْمُسْرِفِينَ  (34
যা সীমাতিক্রমকারীদের জন্যে আপনার পালনকর্তার কাছে চিহিßত আছে।  
"Marked as from thy Lord for those who trespass beyond bounds."  
 
  فَأَخْرَجْنَا مَن كَانَ فِيهَا مِنَ الْمُؤْمِنِينَ  (35
অতঃপর সেখানে যারা ঈমানদার ছিল, আমি তাদেরকে উদ্ধার করলাম।  
Then We evacuated those of the Believers who were there,  
 
  فَمَا وَجَدْنَا فِيهَا غَيْرَ بَيْتٍ مِّنَ الْمُسْلِمِينَ  (36
এবং সেখানে একটি গৃহ ব্যতীত কোন মুসলমান আমি পাইনি।  
But We found not there any just (Muslim) persons except in one house:  
 
  وَتَرَكْنَا فِيهَا آيَةً لِّلَّذِينَ يَخَافُونَ الْعَذَابَ الْأَلِيمَ  (37
যারা যন্ত্রণাদায়ক শাস্তিকে ভয় করে, আমি তাদের জন্যে সেখানে একটি নিদর্শন রেখেছি।  
And We left there a Sign for such as fear the Grievous Penalty.  
 
  وَفِي مُوسَى إِذْ أَرْسَلْنَاهُ إِلَى فِرْعَوْنَ بِسُلْطَانٍ مُّبِينٍ  (38
এবং নিদর্শন রয়েছে মূসার বৃত্তান্তে; যখন আমি তাকে সুস্পষ্ট প্রমাণসহ ফেরাউনের কাছে প্রেরণ করেছিলাম।  
And in Moses (was another Sign): Behold, We sent him to Pharaoh, with authority manifest.  
 
  فَتَوَلَّى بِرُكْنِهِ وَقَالَ سَاحِرٌ أَوْ مَجْنُونٌ  (39
অতঃপর সে শক্তিবলে মুখ ফিরিয়ে নিল এবং বললঃ সে হয় যাদুকর, না হয় পাগল।  
But (Pharaoh) turned back with his Chiefs, and said, "A sorcerer, or one possessed!"  
 
  فَأَخَذْنَاهُ وَجُنُودَهُ فَنَبَذْنَاهُمْ فِي الْيَمِّ وَهُوَ مُلِيمٌ  (40
অতঃপর আমি তাকে ও তার সেনাবাহিনীকে পাকড়াও করলাম এবং তাদেরকে সমুদ্রে নিক্ষেপ করলাম। সে ছিল অভিযুক্ত।  
So We took him and his forces, and threw them into the sea; and his was the blame.  
 
  وَفِي عَادٍ إِذْ أَرْسَلْنَا عَلَيْهِمُ الرِّيحَ الْعَقِيمَ  (41
এবং নিদর্শন রয়েছে তাদের কাহিনীতে; যখন আমি তাদের উপর প্রেরণ করেছিলাম অশুভ বায়ু।  
And in the 'Ad (people) (was another Sign): Behold, We sent against them the devastating Wind:  
 
  مَا تَذَرُ مِن شَيْءٍ أَتَتْ عَلَيْهِ إِلَّا جَعَلَتْهُ كَالرَّمِيمِ  (42
এই বায়ু যার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছিলঃ তাকেই চুর্ণ-বিচুর্ণ করে দিয়েছিল।  
It left nothing whatever that it came up against, but reduced it to ruin and rottenness.  
 
  وَفِي ثَمُودَ إِذْ قِيلَ لَهُمْ تَمَتَّعُوا حَتَّى حِينٍ  (43
আরও নিদর্শন রয়েছে সামূদের ঘটনায়; যখন তাদেরকে বলা হয়েছিল, কিছুকাল মজা লুটে নাও।  
And in the Thamud (was another Sign): Behold, they were told, "Enjoy (your brief day) for a little while!"  
 
  فَعَتَوْا عَنْ أَمْرِ رَبِّهِمْ فَأَخَذَتْهُمُ الصَّاعِقَةُ وَهُمْ يَنظُرُونَ  (44
অতঃপর তারা তাদের পালনকর্তার আদেশ অমান্য করল এবং তাদের প্রতি বজ্রঘাত হল এমতাবস্থায় যে, তারা তা দেখেছিল।  
But they insolently defied the Command of their Lord: So the stunning noise (of an earthquake) seized them, even while they were looking on.  
 
  فَمَا اسْتَطَاعُوا مِن قِيَامٍ وَمَا كَانُوا مُنتَصِرِينَ  (45
অতঃপর তারা দাঁড়াতে সক্ষম হল না এবং কোন প্রতিকারও করতে পারল না।  
Then they could not even stand (on their feet), nor could they help themselves.  
 
  Ayahs:   | 1-15 | 16-30 | 31-45 | 46-60 |