Home    Source

 
 Home
 Subject Index
 Bukhari Shareef
 Muslim Shareef
 Abu Dawud
 Malik Muwatta
Google
See Arabic as Image 
70) সূরা আল মা’আরিজ (মক্কায় অবতীর্ণ), আয়াত সংখ্যা 44
 بِسْمِ اللّهِ الرَّحْمـَنِ الرَّحِيمِ
 শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু।
  Ayahs:   | 1-15 | 16-30 | 31-44 |
 
  فَمَنِ ابْتَغَى وَرَاء ذَلِكَ فَأُوْلَئِكَ هُمُ الْعَادُونَ  (31
অতএব, যারা এদের ছাড়া অন্যকে কামনা করে, তারাই সীমালংঘনকারী।  
But those who trespass beyond this are transgressors;-  
 
  وَالَّذِينَ هُمْ لِأَمَانَاتِهِمْ وَعَهْدِهِمْ رَاعُونَ  (32
এবং যারা তাদের আমানত ও অঙ্গীকার রক্ষা করে  
And those who respect their trusts and covenants;  
 
  وَالَّذِينَ هُم بِشَهَادَاتِهِمْ قَائِمُونَ  (33
এবং যারা তাদের সাক্ষ্যদানে সরল-নিষ্ঠাবান  
And those who stand firm in their testimonies;  
 
  وَالَّذِينَ هُمْ عَلَى صَلَاتِهِمْ يُحَافِظُونَ  (34
এবং যারা তাদের নামাযে যত্নবান,  
And those who guard (the sacredness) of their worship;-  
 
  أُوْلَئِكَ فِي جَنَّاتٍ مُّكْرَمُونَ  (35
তারাই জান্নাতে সম্মানিত হবে।  
Such will be the honoured ones in the Gardens (of Bliss).  
 
  فَمَالِ الَّذِينَ كَفَرُوا قِبَلَكَ مُهْطِعِينَ  (36
অতএব, কাফেরদের কি হল যে, তারা আপনার দিকে উর্ধ্বশ্বাসে ছুটে আসছে।  
Now what is the matter with the Unbelievers that they rush madly before thee-  
 
  عَنِ الْيَمِينِ وَعَنِ الشِّمَالِ عِزِينَ  (37
ডান ও বামদিক থেকে দলে দলে।  
From the right and from the left, in crowds?  
 
  أَيَطْمَعُ كُلُّ امْرِئٍ مِّنْهُمْ أَن يُدْخَلَ جَنَّةَ نَعِيمٍ  (38
তাদের প্রত্যেকেই কি আশা করে যে, তাকে নেয়ামতের জান্নাতে দাখিল করা হবে?  
Does every man of them long to enter the Garden of Bliss?  
 
  كَلَّا إِنَّا خَلَقْنَاهُم مِّمَّا يَعْلَمُونَ  (39
কখনই নয়, আমি তাদেরকে এমন বস্তু দ্বারা সৃষ্টি করেছি, যা তারা জানে।  
By no means! For We have created them out of the (base matter) they know!  
 
  فَلَا أُقْسِمُ بِرَبِّ الْمَشَارِقِ وَالْمَغَارِبِ إِنَّا لَقَادِرُونَ  (40
আমি শপথ করছি উদয়াচল ও অস্তাচলসমূহের পালনকর্তার, নিশ্চয়ই আমি সক্ষম!  
Now I do call to witness the Lord of all points in the East and the West that We can certainly-  
 
  عَلَى أَن نُّبَدِّلَ خَيْرًا مِّنْهُمْ وَمَا نَحْنُ بِمَسْبُوقِينَ  (41
তাদের পরিবর্তে উৎকৃষ্টতর মানুষ সৃষ্টি করতে এবং এটা আমার সাধ্যের অতীত নয়।  
Substitute for them better (men) than they; And We are not to be defeated (in Our Plan).  
 
  فَذَرْهُمْ يَخُوضُوا وَيَلْعَبُوا حَتَّى يُلَاقُوا يَوْمَهُمُ الَّذِي يُوعَدُونَ  (42
অতএব, আপনি তাদেরকে ছেড়ে দিন, তারা বাকবিতন্ডা ও ক্রীড়া-কৌতুক করুক সেই দিবসের সম্মুখীন হওয়া পর্যন্ত, যে দিবসের ওয়াদা তাদের সাথে করা হচ্ছে।  
So leave them to plunge in vain talk and play about, until they encounter that Day of theirs which they have been promised!-  
 
  يَوْمَ يَخْرُجُونَ مِنَ الْأَجْدَاثِ سِرَاعًا كَأَنَّهُمْ إِلَى نُصُبٍ يُوفِضُونَ  (43
সে দিন তারা কবর থেকে দ্রুতবেগে বের হবে, যেন তারা কোন এক লক্ষ্যস্থলের দিকে ছুটে যাচ্ছে।  
The Day whereon they will issue from their sepulchres in sudden haste as if they were rushing to a goal-post (fixed for them),-  
 
  خَاشِعَةً أَبْصَارُهُمْ تَرْهَقُهُمْ ذِلَّةٌ ذَلِكَ الْيَوْمُ الَّذِي كَانُوا يُوعَدُونَ  (44
তাদের দৃষ্টি থাকবে অবনমিত; তারা হবে হীনতাগ্রস্ত। এটাই সেইদিন, যার ওয়াদা তাদেরকে দেয়া হত।  
Their eyes lowered in dejection,- ignominy covering them (all over)! such is the Day the which they are promised!  
 
  Ayahs:   | 1-15 | 16-30 | 31-44 |